Home / অর্থনীতি / পেঁয়াজের এলসি’র সুদ ৯ শতাংশের মধ্যে রাখার নির্দেশ

পেঁয়াজের এলসি’র সুদ ৯ শতাংশের মধ্যে রাখার নির্দেশ

Spread the love

পেঁয়াজের আমদানি ঋণপত্র খোলার (এলসি) সুদের হার  ৯% এর মধ্যে রাখতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আজ বৃহস্পতিবার সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো এক সার্কুলারে বলা হয়েছে, “সাম্প্রতিককালে আন্তর্জাতিক বাজারে পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধির কারণে স্থানীয় বাজারেও পেঁয়াজের মূল্যে ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এ প্রেক্ষাপটে, বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক এবং মূল্য স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে পেঁয়াজ আমদানি ঋণপত্র স্থাপনের ক্ষেত্রে মার্জিনের হার ন্যূনতম পর্যায়ে রাখার জন্য আপনাদেরকে পরামর্শ প্রদান করা হলো।”

এর আগে গত ২ মার্চ জারি করা এক সার্কুলারে পেঁয়াজসহ কিছু ভোগ্যপণ্যের আমদানিতে ঋণপত্র খোলার মার্জিন ন্যূনতম পর্যায়ে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল এক সার্কুলারে, কিন্তু তার মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত বলবৎ ছিল। বৃহস্পতিবারের সার্কুলারে বলা হয়েছে, পেঁয়াজের বাজার স্থিতিশীল রাখার স্বার্থে নতুন নির্দেশনা ‘অবিলম্বে’ কার্যকর হবে এবং ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। আমদানীকারক যখন বিদেশ থেকে কোনো পণ্য আমদানি করতে চান, তখন তার পক্ষে তার ব্যাংক রপ্তানিকারকের পণ্যমূল্য পরিশোধের নিশ্চয়তা হিসেবে ‘লেটার অব ক্রেডিট’ বা এলসি ইস্যু করে। আর এল সি খোলার সময় আমদানি মূল্যের সম্পূর্ণ বা একটি অংশ নগদ অর্থে ‘মার্জিন’ হিসেবে জমা রাখে ব্যাংক।

পাশাপাশি পেঁয়াজ আমদানি বাড়িয়ে বাজার ঠাণ্ডা রাখতে বিদ্যমান ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহারের বিষয়টিও বিবেচনা করা হচ্ছে বলে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানিয়েছেন।